কৃষক আন্দোলন নিয়ে সরকার এবং বিক্ষোভকারী দু’পক্ষকেই ‘সর্বোচ্চ পর্যায়ের সংযম’ পালনের বার্তা রাষ্ট্রপুঞ্জের

17

ভারতে ক্রমাগত চলতে থাকা কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে বিভিন্ন দেশ থেকে প্রতিক্রিয়া আসছিলই। মার্কিন পপস্টার রিহানা, পরিবেশ কর্মী গ্রেটা থুনবার্গ কৃষক আন্দোলনের সমর্থনে সুর চড়িয়েছেন। এবার ময়দানে নামল রাষ্ট্রপুঞ্জ। সরকার এবং এবং বিক্ষোভকারী দু’পক্ষকেই ‘সর্বোচ্চ পর্যায়ের সংযম’ পালনের বার্তা দিয়েছে রাষ্ট্রপুঞ্জের মানবাধিকার দপ্তর। যা অত্যন্ত তাত্‍পর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।
শুক্রবার রাষ্ট্রপুঞ্জের তরফে একটি টুইটে বলা হয়েছে, ‘‌ভারতে চলতে থাকা কৃষক বিক্ষোভে আমরা সরকার এবং বিক্ষোভকারী দু’পক্ষের কাছেই সর্বোচ্চ পর্যায়ের সংযম পালনের আবেদন রাখছি। শুধু বাইরে নয়, অনলাইনেও শান্তিপূর্ণ জমায়েত এবং মতপ্রকাশের অধিকার সুরক্ষিত থাকা উচিত। মানবাধিকারের কথা মাথায় রেখে ন্যায়সঙ্গত সমাধান খুঁজে বার করাই গুরুত্বপূর্ণ।’‌
গত বুধবার থেকেই আন্তর্জাতিক মহলের নানা রকম প্রতিক্রিয়ার পরিপ্রেক্ষিতে পাল্টা প্রতিক্রিয়া দিতে শুরু করে ভারত। এতে সামিল হন শচীন তেন্ডুলকার, লতা মঙ্গেশকার, অক্ষয় কুমার-সহ ক্রীড়া এবং বিনোদন জগতের একাধিক তারকা। কিন্তু এরপর প্রশ্ন উঠতে শুরু করে কেন এই দেশীয় তারকারা দু’মাস ধরে চলা কৃষি বিক্ষোভের সময়ে চুপচাপ ছিলেন।
নতুন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে দু’মাসেরও বেশি সময় ধরে দিল্লির সীমানায় জমায়েত করে বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন কৃষকরা। কিন্তু কোনও সুরাহা মেলেনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here