‘জয় শ্রী রাম’ শুনে অপমানিত! প্রতিবাদে মমতাকে রামায়ণ কুরিয়র মধ্যপ্রদেশের প্রোটেম স্পিকারের

11

ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল হলে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মদিবস উপলক্ষে ‘‌পরাক্রম দিবস’‌–এর অনুষ্ঠান চলাকালীন সৃষ্টি হয়েছিল  অস্বস্তিকর পরিস্থিতি। শনিবার বিকেল ৫টা নাগাদ সবে বক্তব্য শেষ করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ সিং প্যাটেল। এর পরের বক্তা পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ডেকে নেন অনুষ্ঠানের সঞ্চালক। তখনই আচমকা সভায় উপস্থিত দর্শকদের মধ্যে থেকে উঠে আসে ‘‌জয় শ্রী রাম’‌ স্লোগান। আর তাতে ক্ষুব্ধ হয়ে, এর প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তব্য না রেখেই ফিরে আসেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই নিয়েই এখন রাজ্য রাজনীতিতে চলছে জোর আলোচনা। আর সেই ‘‌জয় শ্রী রাম’‌স্লোগানের আঁচ এবার গিয়ে লাগল মধ্যপ্রদেশেও। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আস্ত রামায়ণ পাঠিয়ে বসলেন মধ্যপ্রদেশের প্রোটেম স্পিকার রামেশ্বর শর্মা। ইতিমধ্যে মুখ্যমন্ত্রীর ঠিকানায় কুরিয়ার পাঠিয়েছেন রামেশ্বর শর্মা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে রামায়ণ পড়ার অনুরোধও করেছেন মধ্যপ্রদেশের স্পিকার। 

‘‌জয় শ্রী রাম’‌ ধ্বনি শুনে এভাবে বক্তব্য না রেখে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ফিরে আসাকে একেবারেই সমর্থন করছেন না মধ্যপ্রদেশ বিধানসভার প্রোটেম স্পিকার। হুজুর বিধানসবার বিজেপি বিধায়ক এরপরে রবিবারই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে রামায়ণ পাঠান কুরিয়ারে। বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর রাম নামে আপত্তি নিয়েও প্রশ্ন তোলেন মধ্যপ্রদেশের প্রোটেম স্পিকার। সেকারণে মমতাকে রামায়ণ পড়ার পরামর্শ দিয়েছেন রামেশ্বর শর্মা। বাংলার মাটিতে রাম নামের অপমান হচ্ছে বলে তাঁর অভিযোগ। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here