‘কর্মচারী হয়ে না থাকতে চাইলে বিজেপিতে আসতেই হবে’, রাজীবকে বার্তা শুভেন্দুর

23

সদ্যই নিজে যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে (BJP)। এবার নিজের প্রাক্তন সহকর্মী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কেও (Rajib Banerjee) গেরুয়া শিবিরে আহ্বান জানালেন শুভেন্দু অধিকারী। রাজীবের উদ্দেশে তাঁর বার্তা, “কর্মচারী হয়ে যদি থাকতে চান, তাহলে তৃণমূলে থাকুন। নাহলে বিজেপিতে আসতেই হবে।”

প্রসঙ্গত, শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari ) বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আগে থেকেই রীতিমতো বেসুরো রাজীব। একাধিকবার প্রকাশ্যেই মুখ খুলেছেন তিনি। তৃণমূলের অভ্যন্তরে যে তাঁর কাজ করতে অসুবিধা হচ্ছে, তাও জনসমক্ষে বলতে শোনা গিয়েছে রাজ্যের বনমন্ত্রীকে। একাধিক মন্ত্রিসভার বৈঠকেও গরহাজির থেকেছেন তিনি। তবে, এখনও বিজেপিতে যোগ নিয়ে প্রকাশ্যে কিছু বলেননি। এদিন চন্দননগরের সভা থেকে ঘুরিয়ে রাজীবকে বিজেপিতে আহ্বান জানালেন শুভেন্দু। বললেন, “রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় হাওড়ায় জিতেছিল। শুনছি নাকি সে এখন বেসুরো। আজ সকালে দেখলাম প্রবীর ঘোষালও নাকি বেসুরো। সবাই বেসুরে গান গাইছে না। রাজীব কী করবে আমি জানি না। আমি বলব কর্মচারী হয়ে যদি থাকতে চান, তাহলে তৃণমূলে (TMC) থাকুন। নাহলে বিজেপিতে আসতেই হবে।”

গেরুয়া শিবিরে যোগ দেওয়ার পর থেকেই শাসকদলের উদ্দেশে একের পর এক তোপও দেগে চলেছেন শুভেন্দু। এদিনের সভাতেও তার ব্যতিক্রম হল না। সরাসরি দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) নিশানা করে তিনি বললেন,”মুখ্যমন্ত্রীর মাথা কাজ করছে না। হিসেব মিলছে না। নন্দীগ্রামে গিয়ে বলছেন ভবানীপুর আমার বড় বোন আর নন্দীগ্রাম মেজবোন। এরপর হয়তো জঙ্গলমহলে গিয়ে বলবেন, নেতাই আমার ছোট বোন।” বিজেপি নেতার অভিযোগ, “রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মিথে কথা ছাড়া বলেন না। কেন্দ্রের প্রকল্পগুলিকে রাজ্যের নামে চালাচ্ছেন।” এদিন আরও একবার মমতাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে শুভেন্দু বলেন,”আমি কালকে বলেছি দু’জায়গায় দাঁড়াতে দেব না। নন্দীগ্রামেই দাঁড়াতে হবে। আর নন্দীগ্রামে বিজেপির টিকিটে যেই দাঁড়াক হাফ লাখ ভোটে হারাব।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here