জলপাইগুড়ির মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় ঘুম উড়েছে দেশের, কী ভাবে কেন গেল ১৪ তাজা প্রাণ! দেখুন ছবিতে

কিন্তু কী ভাবে ঘটল এতবড় ঘটনা?

20

ধূপগুড়ির মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনায় শিউরে উঠছে দেশ। এক লহমায় প্রাণ চলে গিয়েছে অন্তত ১৪ জনের। শোকপ্রকাশ করে নরেন্দ্র মোদি মৃত ব্যক্তিদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাসও দিয়েছেন মোদি। কিন্তু কী ভাবে ঘটল এতবড় ঘটনা?

 ধূপগুড়ির মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনায় শিউরে উঠছে দেশ। এক লহমায় প্রাণ চলে গিয়েছে অন্তত ১৪ জনের। শোকপ্রকাশ করে নরেন্দ্র মোদি মৃত ব্যক্তিদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাসও দিয়েছেন মোদি। কিন্তু কী ভাবে ঘটল এতবড় ঘটনা?

মঙ্গলবার রাত সাড়ে নটা নাগাদ ধূপগুড়ির লাললস্কুল এলাকায় লরির সঙ্গে তিনটি গাড়ির সংঘর্ষে মৃত্যু হয়েছে অন্তত ১৪ জনের। মৃতদের মধ্যে চার শিশু রয়েছে।

 স্থানীয় সূত্রে খবর, ধূপগুড়ি থেকে এশিয়ান হাইওয়ে ৪৮ সড়ক বরাবর জলপাইগুড়ির দিকে যাচ্ছিল। অভিযোগ লরিটি ওভারলোডেড ছিল।একসময়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়। তার তলায় চাপা পড়ে যায় যাত্রীবোঝাই ম্যাজিক ভ্যান ও একটি মারুতি অল্টো। ওই দুটি গাড়িতে করে বউভাত অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন বেশ কয়েকজন।

স্থানীয় সূত্রে খবর, ধূপগুড়ি থেকে এশিয়ান হাইওয়ে ৪৮ সড়ক বরাবর জলপাইগুড়ির দিকে যাচ্ছিল। অভিযোগ লরিটি ওভারলোডেড ছিল।একসময়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়। তার তলায় চাপা পড়ে যায় যাত্রীবোঝাই ম্যাজিক ভ্যান ও একটি মারুতি অল্টো। ওই দুটি গাড়িতে করে বউভাত অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন বেশ কয়েকজন।

 ঘটনার জেরে জাতীয় সড়ক বন্ধ করে দেওয়া হয়। উদ্ধারকাজে হাত লাগান দমকল, পুলিশ ও স্থানীয় মানুষ। বেশ কয়েকজনকে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় ওই ডাম্পারের তলা থেকে বের করে ধূপগুড়ি হাসপাতাল ও জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনাস্থলে আসেন ধূপগুড়ির বিধায়ক মিতালী রায়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অন্তত ১৪ জনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

ঘটনার জেরে জাতীয় সড়ক বন্ধ করে দেওয়া হয়। উদ্ধারকাজে হাত লাগান দমকল, পুলিশ ও স্থানীয় মানুষ। বেশ কয়েকজনকে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় ওই ডাম্পারের তলা থেকে বের করে ধূপগুড়ি হাসপাতাল ও জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনাস্থলে আসেন ধূপগুড়ির বিধায়ক মিতালী রায়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অন্তত ১৪ জনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

 প্রধানমন্ত্রীর দফতরের পক্ষ থেকে মৃতের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা দেওয়ার কথা জানানো হয়েছে। এছাড়া কেন্দ্রের তরফে আহতদের পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা দেওয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রীর দফতরের পক্ষ থেকে মৃতের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা দেওয়ার কথা জানানো হয়েছে। এছাড়া কেন্দ্রের তরফে আহতদের পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা দেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here