লকডাউনেও বদলায়নি পরিবেশ! ফের বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত শহরের তকমা জুটল এই শহরের

12

করোনা মহামারীর সংক্রমণ রুখতে দীর্ঘদিন ধরে লকডাউন চলেছিল বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায়। সেসময় পরিবেশের দূষণ কিছুটা কমলেও বর্তমানে পরিস্থিতি ফের আগের মতোই ভয়াবহ হয়ে উঠেছে। যার জেরে ফের বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত শহরের তালিকায় প্রথম স্থানে উঠে এসেছে ঢাকা। বুধবার সকালে ঢাকার এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্সের (AQI) পরিমাণ ৩৭৮ ছিল বলে জানা গিয়েছে। এর ফলে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন পরিবেশবিদরা। করোনার তাণ্ডবের মধ্যে আবহাওয়ার এই হাল তাঁদের চিন্তা আরও বাড়িয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কোনও এলাকার বাতাসে এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স যদি ২০১ থেকে ৩০০-এর মধ্যে হয় তাহলে সেই এলাকার আবহাওয়া খারাপ বলে মনে করা হয়। আর এই পরিমাণ যদি ৩০১ থেকে ৪০০-এর মধ্যে হয় তাহলে বিষয়টি বেশ বিপজ্জনক বলে বোঝায়। বুধবার সকাল সাড়ে ৯টা নাগাদ ঢাকার একিউআই ৩৭৮ ছিল। যা বিশ্বের দূষিত শহরের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা মঙ্গোলিয়ার রাজধানী উলানবাটারের ৩৫৬ থেকে ২২ বেশি। এই দুটি শহরের পরেই তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভিয়েতনামের হানোই শহরে। সেখানে বুধবার সকালে এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্সের পরিমাণ ছিল ২৭৮।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ঢাকা শহরে যেভাবে বায়ু দূষণ (Air Pollution) বাড়ছে, তাতে এই শহরে বাস করা দিন দিন কঠিন হয়ে উঠছে বলে মত পরিবেশবিদদের। এই দূষণ কমাতে কিংবা পরিবেশ রক্ষার জন্য গাড়িতে সৌরবিদ্যুৎ ব্যবহার করার বিষয়ে জোর দিচ্ছে সরকার। গাড়িতে সৌরবিদ্যুৎ ব্যবহার করার বিষয়ে প্রশাসনের দাবি, বিশ্বের অনেক দেশেই ইলেকট্রিক গাড়ি আছে। সেগুলি ব্যয়বহুল হলেও দূষণ কম হয়। বর্তমানে নৌকা ও ভ্যানে সৌরবিদ্যুৎ ব্যবহার করার কথাও ভাবা হচ্ছে। এই বিষয়ে পরীক্ষামূলক কাজও হচ্ছে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে। এর আগে ব্র্যাকের অ্যাম্বুলেন্সেও সৌরবিদ্যুৎ ব্যবহারের বিষয়টি নিয়ে কাজ হয়েছে। এখন যাত্রীবাহী গাড়ির বিষয়টি নিয়েও ভাবনাচিন্তা হচ্ছে। তবে গাড়িতে সৌরবিদ্যুৎ সরাসরি ব্যবহার করা যাবে না। সৌরবিদ্যুৎচালিত চার্জ স্টেশনে গাড়ি চার্জ দেওয়া যেতে পারে।

এপ্রসঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক এবং বায়ুদূষণ গবেষক অধ্যাপক ড. আবদুস সালাম বলেন, ‘এটি হলে ভাল হত। উন্নত দেশগুলোয় বহু আগে থেকেই জ্বালানি ব্যবহার বন্ধ হয়েছে। ফলে সেখানে দূষণ কম হয়। গাড়ি ব্যাটারিচালিত বিদ্যুৎ হোক বা সৌরবিদ্যুৎ থেকে চার্জ নিয়ে হোক- বিকল্প বিদ্যুতের ব্যবহার হলে দূষণ অনেক কমে যাবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here