‘সুযোগ দিচ্ছেন, ভোট না দিলে কিন্তু বেইমানি হবে’, পুরুলিয়ার সভায় শতাব্দীর

36

পুরুলিয়ার সভায় আসন্ন নির্বাচনে তৃণমূলকে ভোট দিয়ে জয়ী করার কথা বলে বিজেপিকে বিঁধলেন বীরভূমের তিন বারের তারকা সাংসদ।পুরুলিয়ার হুটমোড়ার সভা থেকেই বীরভূমের তিন বারের তারকা সাংসদ শতাব্দী রায় হুংকার ছাড়লেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) সুযোগ দিচ্ছেন, ভোট না দিলে কিন্তু বেইমানি হবে।” একেবারে দলনেত্রীর পথ অনুসরণ করেই এদিন বিরোধী শিবিরের উদ্দেশে তোপ দাগেন সাংসদ।

এদিন শতাব্দী রায় সাফ ভাষায় বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার প্রায় সমস্ত উন্নয়নমূলক কাজই করে দিয়েছে। ১০০ শতাংশ কাজ কেউই করতে পারে না। তবে পুরুলিয়ার মতো জায়গা থেকে লোডশেডিংয়ের মতো সমস্যা দূর করাও বড় চ্যালেঞ্জ ছিল , আর তা হয়েছে। শতাব্দী বলেন দিদি যা বলেছেন,তা করেছেন। আর বিজেপি মিথ্যা কথা বলে।

শতাব্দী দাবি করেন, বিজেপি জেনে বুঝে মিথ্যাচার করছে। তারা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। জনসভায় দর্শকদের উদ্দেশে শতাব্দীর বার্তা বিজেপির বিভ্রান্তিমূলক প্রতিশ্রুতিতে যেন কেউ পা না দেয়। 

এদিকে, কয়েদিন আগে ফেসবুক পোস্টে শতাব্দী জানিয়েছিলেন যে তঁকে বীরভূমে দলের কোনও কাজে যোগ দিতে দেওয়া হয়না। কর্মসূচির খবরও তিনি পাননা। এরপর এদিন শতাব্দী বলেন, সংসারে থাকতে গেলে মা, বাবা, স্বামীর বিরুদ্ধে রাগ হতেই পারে। তখন হয়তো রাগ করে পাল্টা কথাও ওঠে। তবে সেই মা , বাবা, বা স্বামীকে যদি পাশের বাড়ির কেউ, বা বাইরের কেউ টার্গেট করে কিছু বলেন, ‘তাহলে কি আপনি জবাব দেবন না?’ 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here