KYC–র নামে নতুন প্রতারণা চক্র, এয়ারটেল গ্রাহকদের সাবধান করল কলকাতা পুলিশ

11

এর আগে ব্যাঙ্কের ম্যানেজার বা ব্যাঙ্ক কর্মী পরিচয় ওটিপি হাসিল করে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে আর্থিক প্রতারণার একাধিক উদাহরণ সামনে এসেছে। অতি সম্প্রতি করোনার ভ্যাকসিন নিয়েও প্রতারণার নতুন ছক কষে ডিজিটাল দুষ্কৃতীরা। আর এবার এয়ারটেল কেওআইসি–র নামে নতুন আর্থিক তছরূপ শুরু হয়েছে। রবিবার টুইট করে এ ব্যাপারে জনসাধারণকে সাবধান করল কলকাতা পুলিশ।

এদিন কলকাতার জয়েন্ট পুলিশ কমিশনারের (‌অপরাধ)‌ তরফে টুইট করে জানানো হয়েছে, কেওয়াইসি–র নামে এয়ারটেল গ্রাহকদের এক নতুন প্রতারণা চক্র ছড়িয়ে পড়েছে। আমরা এ সংক্রান্ত একাধিক অভিযোগ পেয়েছি। সাবধান থাকুন। এ ধরণের প্রতারণার চেষ্টা করা হলে যে নম্বর থেকে ফোন এসেছে সেগুলি অ্যান্টি ব্যাঙ্ক ফ্রড হেল্পলাইন ৮৫৮৫০৬৩১০৪–এ ফোন করে রিপোর্ট করা যেতে পারে।

কিন্তু কেওয়াইসি করানোর নামে কীভাবে প্রতারণা করা হচ্ছে?‌ কলকাতা পুলিশের বক্তব্য, কেওয়াইসি (‌নো ইওর কাস্টোমার)‌ আপডেট করানোর জন্য ফোন পাচ্ছেন এয়ারটেল গ্রাহকরা। এর পরই প্রতারকরা একটি ওয়েবসাইট লিঙ্ক পাঠাচ্ছে যার মাধ্যমে ডাউনলোড হচ্ছে একটি সফ্‌টওয়্যার বা অ্যাপ। সেখানে নিজের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট বা ক্রেডিট কার্ড, ডেবিট কার্ডের তথ্য দিয়ে তার মাধ্যমে ১০ টাকা পাঠাতে বলা হচ্ছে। অনেকেই সেই নির্দেশ মেনে ১০ টাকা পাঠাচ্ছেন। আর দেখা যাচ্ছে কারও ১০ হাজার, কারও ৫০ হাজার টাকা বা তারও বেশি অর্থ রাশি লুঠ হয়ে যাচ্ছে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে।

পাশাপাশি এয়ারটেলের তরফ থেকেও তাদের গ্রাহকদের সচেতন করা হচ্ছে। গ্রাহকদের পাঠানো মেসেজে বলা হচ্ছে, নম্বর ভেরিফিকেশনের জন্য এয়ারটেল কখনওই তার গ্রাহকের কাছে কেওয়াইসি তথ্য, আধার নম্বর চায় না। কোনও অ্যাপ ডাউনলোড করতে বা কোনও নম্বরে ফোন করতেও বলা হয়নি এয়ারটেলের তরফে। এভাবে অনেকেই এসএমএস বা ফোন কলের মাধ্যমে আর্থিক প্রতারণা করছে। সাবধান থাকুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here