পৈশাচিক ঘটনা! নাবালক থেকে নাবালিকা বানিয়ে চলত যৌন ব্যবসা

20

দিল্লির লক্ষ্মী নগর এলাকার ১৩ বছর বয়সী একটি নাবালক হলো ৩বছর ধরে শোষণের শিকার। অমানবিক অত্যাচারের মাধ্যমে তাকে দিয়ে ব্যবসা করানো হতো। নয়া দিল্লিতে ঘটলো ফের এমন ঘটনা।

ছেলেটি নাচ দেখতে এবং করতে ভালো ব্যাস্ত। বছর ৩ আগে কিছু লোকের সাথে একটি নাচের অনুষ্ঠানে তার আলাপ হয়। মানুষরূপী পশুগুলি তাকে ভালো ভাবে নাচ শেখার এবং নাচ করে অর্থ উপার্জন করার আশা দেখায়। বিশ্বস্ত নাবালকটি তাদের কথায় তাদের সাথে মান্ডাভালি তে আসে।

১৩ বছর বয়সেই তাকে সব রকম নেশা করতো তারা। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে পুরুষ থেকে মহিলা করা হয় তাকে। যাতে তাকে দিয়ে শোষণের মাধ্যমে আয় করানো যায়। হরমোনাল ট্যাবলেট খাওয়ানো হতো। পুরুষ থেকে নারী হবার পর প্রথমে সেই অমানুষ বর্বররাই নিয়মিত ধর্ষণ করতো। বিভিন্ন লোক এসে টাকার বিনিময় তাতে ধর্ষণ করতো। এমন কি তাকে বৃহন্নলা সাজিয়ে রাস্তায় ভিক্ষা চাওয়ানো হতো। আপত্তি জানালে মারতো এবং মেরে ফেলার হুমকি দিত। তার পরিবারকেও মারার হুমকি দিত।

বছর ৩পরে নাবালকের এক বন্ধু কেও তুলে আনে। কিছু দিন পর ২ জনে পালিয়ে মায়ের কাছে যায়। তাদের মা তাদের অন্য বাড়িতে লুকিয়ে রাখে। সেখানে এই ধর্ষকগণ তাদের খুঁজে এনে। ফের গণধর্ষণ করে। কিন্তু কিছু দিন পর তারা আবার পালিয়ে যায়। এবার পালিয়ে স্টেশন চত্বরে থাকে। তারপর একজন আইনবিদ এর সহায়তার পুলিশ কমিশনারের কাছে গিয়ে সব ত জানায়। বর্তমানে ধর্ষকরা POCSO Act এ IPC-র 377, 363, 326, 506, 341 ধারায় দণ্ডিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here