‘তাণ্ডব’-এর বিরুদ্ধে হিন্দুদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগ! আমাজন প্রাইমের জবাব চাইল কেন্দ্র

22

রিলিজের পর থেকেই আমাজন প্রাইমেরর ওয়েব সিরিজ ‘তাণ্ডব’ কে ঘিরে রীতিমতো তাণ্ডবই শুরু হয়ে গেছে।রবিবার রাতে এই ঘটনার জেরে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম আমাজন প্রাইম কর্তৃপক্ষকে তলব করল কেন্দ্রীয় তথ্য-সম্প্রচার মন্ত্রক, জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা এএনআই।

এইদিনই সইফ ও পুরো তান্ডব টিমের বিরুদ্ধে ঘাটকুপার থানায় অভিযোগ জমা দিয়েছে বিজেপি নেতা রাম কদম। ‘তাণ্ডব’-এর বিরুদ্ধে হিন্দু দেবতাদের অপমান করা ও হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ভাবাবেগে আঘাত হানার অভিযোগ রয়েছে। এর জেরেই আঁটোসাটো করা হল সইফের বাড়ির নিরাপত্তা। মুম্বই পুলিশের তরফেও নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে পতৌদির নবাবের মুম্বইয়ের আবাসন।

বাড়ির একদম উলটো দিকেই নতুন বাড়ি কিনেছেন সইফিনা। আপাতত শিফটিংয়ের কাজ চলছে। বাড়ির কর্মচারীরা পুলিশি নিরাপত্তার মাঝেই রবিবার এক বাড়ি থেকে অন্য বাড়িতে জিনিসপত্র নিয়ে যাওয়ার কাজ সাড়ল। 

হিন্দু ধর্মের এই অবমাননা কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না সাফ জানিয়েছেন বিজেপি নেতা রাম কদম। তিনি বলেন, ‘আমি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভেড়করকে চিঠি লেখবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এই ইস্যুতে, প্রতিটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মকে সেন্সারশিপের আওতাভুক্ত করতে হবে সেটাও জানাবো’।

এই সিরিজের কোনও অংশ নিয়ে তাঁর আপত্তি আছে, সেই সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘একজন অভিনেতা ভগবান শিবের ত্রিশূল ও ডমরু আপত্তিকরভাবে ব্যবহার করেছে তা ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত হেনেছে। সেই অভিনেতা, পরিচালক ও প্রযোজকদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাচ্ছি’।

রাম কদমের পাশাপাশি বিজেপি নেতা মনোজ কোটাকও প্রকাশ জাভেড়করকে চিঠি লিখেছেন এই বিষয়টি নিয়ে। তান্ডব সম্পর্কে তাঁর অভিযোদ, ‘হিন্দু ধর্ম নিয়ে ঠাট্টা করেছে এই সিরিজ। আমাদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত হানা হয়েছে। আমি কেন্দ্রের কাছে এই সিরিজ ব্যান করবার দাবি জানাচ্ছি’। আমাজন প্রাইমের কোনও বক্তব্য এখনও পাওয়া যায়নি। তবে দ্রুত এই ওয়েব প্ল্যাটফর্মের জবাব চেয়ে পাঠিয়েছে কেন্দ্র।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here