আচমকা দিল্লির পথে শতাব্দী, অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করার সম্ভাবনা

34

বেসুরো হওয়ার পরে সম্ভবত দিল্লি যাচ্ছেন তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায়। তারাপীঠ উন্নয়ন পর্ষদ থেকে পদত্যাগ করেছেন তিনি। এলাকায় যেতে চাইছি,কিন্তু পৌছাতে পারছেন না তিনি এমনটাই অভিযোগ করেছেন তিনি। দিল্লি গিয়ে অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করার প্রসঙ্গে ইঙ্গিতপূর্ণ ভাবে বলেন, পরিচিত মানুষদের দেখা হতে পারে।  তবে দেখা হওয়াটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। 

প্রসঙ্গত গতকাল শতাব্দী রায়ে একটি ফ্যান পেজ থেকে ফেসবুক পোস্টে বলা হয়, ‘ গত দশ বছরে আমি আমার বাড়ির থেকে বেশি সময় আপনাদের কাছে বা আপনাদের প্রতিনিধিত্ব করতে কাটিয়েছি, আপ্রাণ চেষ্টা করেছি কাজ করার, এটা শত্রুরাও স্বীকার করে। তাই এই নতুন বছরে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ার চেষ্টা করছি যাতে আপনাদের সঙ্গে পুরোপুরি থাকতে পারি। আপনাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।’ এখানেই শেষ হয়নি শতাব্দীর লেখা। এরপরেই রয়েছে বিস্ফোরক বার্তা। যেখানে অভিনয় জগত থেকে রাজনীতিতে পদার্পণ করা শতীব্দী লিখেছেন, ‘আশা করি ভবিষ্যতেও আপনাদের ভালোবাসা পাব। সাংসদ অনেক পরে, তার অনেক আগে থেকেই শুধু শতাব্দী রায় হিসেবেই বাংলার মানুষ আমাকে ভালোবেসে এসেছেন। আমিও আমার কর্তব্য পালনের চেষ্টা করে যাব। যদি কোনো সিদ্ধান্ত নিই আগামী ১৬ জানুয়ারি ২০২১ শনিবার দুপুর দুটোয় জানাব।’

তৃণমূলের এই অভিনেত্রী সাংসদের বিজেপিতে যোগ দেওয়ার তীব্র জল্পনা বাড়ছে। কয়েকদিন আগে বোলপুরে পদযাত্রা করেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাতে নেত্রীর পাশেই দেখা গিয়েছিল শতাব্দীকে। মিছইলের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মমতার সঙ্গেই তাল মিলিয়ে হেঁটেছিলেন বীরভূমের সাংসদ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here