নিউটাউনের হোটেলের ঘরে মিলল এক মহিলার ক্ষতবিক্ষত দেহ

55

নিউটাউনের একটি হোটেলের ঘরে মিলল এক মহিলার ক্ষতবিক্ষত দেহ। দেহটি একটি চাদরে মোড়া অবস্থায় ছিল। খাটের উপরে পড়েছিল। মঙ্গলবার দুপুরে এক ব্যক্তির সঙ্গে ওই মহিলা হোটেলে যান। আইডি কার্ড অনুযায়ী, দু’জনেরই বাড়ি মেদিনীপুরে।

জানা গিয়েছে, চুমকি ঘোষ ও অমিত ঘোষ মঙ্গলবার দুপুরে নিউটাউনে ওই হোটেলের ঘর বুক করেন। মঙ্গলবারেই সন্ধ্যা ৭টায় ঘর ছাড়ার কথা ছিল। হোটেল কর্তৃপক্ষ দুজনেরই পরিচয়পত্রের ফটোকপি নিয়ে ঘর দেয়। অমিত এরপর হোটেল থেকে বেরিয়ে যায়, স্টাফদের বলে, খুব তাড়াতাড়িই ফিরবে। 

হোটেলকর্মী অপু সাউয়ের কথায়, ‘ওরা দুপুর দেড়টায় এসেছিল। নিজেদের দম্পতি বলেই পরিচয় দেয়। সঠিক পরিচয়পত্র দেয়। আমরা ফটোকপি রেখে দিই। ওরা বলে, সন্ধে ৭টায় ঘর ছেড়ে দেবে। ৮টা বেজে যাওয়ার পরেও চেক আউট করছিল না। রুমে ল্যান্ড ফোনে ফোন করেও সাড়া না-মেলায় আমরা দরজা ভেঙে ঢুকি। দেখি, টিভি চলছে। খাটের উপরে চাদরে মোড়া অবস্থায় পড়ে রয়েছে মহিলার দেহ। আমরা কিচ্ছুতে স্পর্শ করিনি। পুলিশকে জানাই।’

অমিত ঘোষের সঙ্গে চুমকি ঘোষের সম্পর্ক নিয়ে খোঁজ নিচ্ছে পুলিশ। একই সঙ্গে অমিতের খোঁজেও তল্লাশি চলছে। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here