টেলিকমিউনিকেশনে বিপ্লব আনবে CMS-01, নতুন স্যাটেলাইট পাঠাচ্ছে ইসরো

61

টেলিকমিউনিকেশনে গতি আনতে মহাকাশে নতুন স্যাটেলাইট পাঠাচ্ছে ইসরো। এতদিন মহাকাশ থেকে পৃথিবীতে যোগাযোগ রক্ষা করত জিস্যাট সিরিজের ভারী কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট। নতুন উপগ্রহও জিস্যাটের গোত্রের তবে আরও আধুনিক। এই স্যাটেলাইটের নাম সিএমএস-০১। আগামীকাল, ১৭ ডিসেম্বর শ্রীহরিকোটার সতীশ ধবন মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র থেকে পৃথিবীর কক্ষপথের দিকে উড়ে যাবে এই স্যাটেলাইট। যোগাযোগ রক্ষাকারী পুরনো স্যাটেলাইটের বদলে আধুনিক সিএমএস-০১ কে পৃথিবীর কক্ষে বসানোর পরিকল্পনা দীর্ঘদিন ধরেই করছিল ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো। আগামীকাল বেলা ৩টে ৪১ মিনিট নাগাদ পিএসএলভি-সি৫০ রকেটের পিঠে চাপিয়ে এই কৃত্রিম উপগ্রহকে পৃথিবীর মাধ্যাকর্ষণের বাইরে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। ইসরো জানাচ্ছে জিস্যাট-১২ টেলিকমিউনিকেশন স্যাটেলাইটকে বাতিল করে সিএমএস-০১ কে বসানো হবে পৃথিবীর কক্ষে, যা ভারতের দ্বীপগুলিতে ও প্রত্যন্ত এলাকায় যোগাযোগ ব্যবস্থায় দুরন্ত গতি নিয়ে আসবে।

পৃথিবীর উপবৃত্তাকার কক্ষপথে বসানো হবে এই স্যাটেলাইটকে। ৩৫ হাজার কিলোমিটার কক্ষপথে ৮৩ ডিগ্রি কৌণিক অবস্থানে বসবে সিএমএস-০১। পৃথিবীর কক্ষে এই স্যাটেলাইটকে বসিয়ে দিয়ে আসবে ইসরোর ‘পোলার স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকল’ তথা পিএসএলভি রকেট। ইসরো জানিয়েছে, এমনভাবে এই স্যাটেলাইটকে বসানো হবে যাতে সেটি পৃথিবীর ঘূর্ণনের সঙ্গে একই গতি ঘুরতে পারে। ইসরো জানাচ্ছে, এই কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট রেডিও যোগাযোগে বিশেষ ভূমিকা নেবে। আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ, লক্ষদ্বীপের টেলি যোগাযোগ আরও উন্নত হবে। এই কৃত্রিম উপগ্রহের জন্য নিশ্চিত ভাবেই প্রযুক্তিগত দিক থেকে অনেকটাই এগিয়ে যাবে ভারত। আরও উন্নত হবে দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা। কেবল দিয়ে ইন্টারনেট যেখানে পৌঁছে দেওয়া সম্ভব নয়, সেই সব দুর্গম জায়গাতেও পাওয়া যাবে ইন্টারনেট পরিষেবা। অর্থাত্‍, আরও কার্যকরী হবে ডিজিটাল ইন্ডিয়া। সারা ভারতে ব্রডব্যান্ড পরিষেবার উন্নতিতে এই স্যাটেলাইটের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়াবে। নতুন প্রজন্মের বিভিন্ন পরিষেবা এই স্যাটেলাইটের মাধ্যমে পাবে দেশের মানুষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here