সোশ্যাল মিডিয়া আসক্তিহীন পাত্রী চাই! পত্রিকায় বিজ্ঞাপন

56

বউ হতে হবে ফর্সা, সুন্দর, গৃহকর্মে নিপুণা! পাত্রী চাই বিজ্ঞাপনে এমন কত বৈশিষ্ট্যের কথাই উল্লেখ থাকে- তা নিয়ে বিস্তর তর্কবিতর্কও রয়েছে। তবে সদ্য ভাইরাল হওয়া এক বিজ্ঞাপনে পাত্রের চাহিদা একেবারে অন্যরকম। সেই ব্যতিক্রমী বিজ্ঞাপনের বক্তব্য এখন সোশ্যাল মিডিয়ার হটকেক। যে দেখছেন সেই অবাক হচ্ছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে হুগলির কামারপুকুরে। জানা গেছে, কারো সঙ্গে মন বিনিময় হয়নি, হুগলির কামারপুকুরের বাসিন্দা  এক আইনজীবী (৩৭) বিয়ে করবেন। তাই পাত্রী চাই বিজ্ঞাপন দেন তিনি। ওই বিজ্ঞাপনের বয়ান একেবারেই ব্যতিক্রমী। তাতে লেখা, “নেশাগ্রস্ত নই। হাইকোর্ট আইনজীবী। একটি গাড়ি রয়েছে। বাবা-মা জীবিত। কামারপুকুরে গ্রামের বাড়ি। ফর্সা, সুন্দরী, লম্বা, রোগা পাত্রীর দাবি নেই। দাবি একটাই পাত্রী সোশ্যাল মিডিয়ায় আকৃষ্ট হলে চলবে না।”বিজ্ঞাপনটি টুইট করেন স্থানীয় আইএএস কর্মকর্তা নীতিন স্যাংওয়ান। বর্তমান যুগের যুবকের মনের মানুষ খোঁজার চাহিদাও বদলাচ্ছে বলে ওই বিজ্ঞাপন শেয়ার করে লেখেন তিনি।

তার টুইট নিমেষেই ভাইরাল হয়ে যায়। অনেকেই ওই আইএএস কর্মকর্তার সঙ্গে সহমত পোষণ করে বলেন সত্যিই চাহিদা বদলাচ্ছে। আবার কেউ কেউ মজার ছলে ওই যুবককে শুভেচ্ছাও জানান।

তবে একদল নেটিজেন এই বিজ্ঞাপন দেখে ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন। তাদের মতে, বর্তমানে যুগে সকলেই কোনও না কোনও সোশ্যাল মিডিয়ার সঙ্গে যুক্ত। সেই যুগের যুবক কীভাবে সোশ্যাল মিডিয়ার নেশায় বুঁদ না হওয়া পাত্রী খুঁজতে পারেন, সেই প্রশ্নও ছুঁড়ে দিয়েছেন কেউ কেউ।

তবে বিজ্ঞাপন নিয়ে এত আলোচনা হলেও ওই যুবক আদৌ পাত্রী খুঁজে পেলেন কিনা, সে বিষয়ে এখনও কিছুই জানা যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here