নখ দেখে কী করে বুঝবেন শরীরে কোন রোগ বাসা বাঁধছে?

52

মহিলারা তো বটেই, অনেক পুরুষও তার নখের পিছনে বেশ খানিকটা সময় ব্যয় করে থাকে৷ অনেকেই হাত ও পায়ের নখ সুন্দর করে সাজিয়ে তুলতে মোটা অঙ্কের টাকাও খরচ করেন। কিন্তু, প্রায় অনেকেই জানে যে, এই নখের রঙ দেখে শরীরে ধীরে ধীরে বাড়তে থাকা নানা রোগের লক্ষণ বোঝা সম্ভব৷শুকনো নখ:

যারা বেশি বেশি জলের কাজ করেন বা জলে বেশিক্ষণ ধরে থাকেন, যেমন সাঁতার কাটা প্রভৃতি তাদের হাতের নখ বেশি শুষ্ক হয়। ফলে তা ভঙ্গুরও হয়ে থাকে।

নখের মাঝে দাগ:

নখের মাঝখানে যদি আড়াআড়িভাবে দাগ থাকে, তাহলে বুঝতে হবে যে শরীরের কোনও সমস্যা থেকে তা ভালো হওয়ার দিকে যাচ্ছে। এই কারণে নখের গঠন বাধা পাচ্ছে।

নখে নীলচে দাগ:

নখের গোড়ায় যদি হালকা নীলচে দাগ বা নীলচে আভা দেখতে পাওয়া যায়, তবে বুঝতে হবে শরীরে পরিমিত পরিমাণ অক্সিজেন পৌঁছাচ্ছে না। ঘটছে অক্সিজেনের ঘাটতি অর্থাৎ হয়তো অক্সিজেন স্বল্পতায় ভুগছেন তিনি। এক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত৷ এছাড়াও ফুসফুস ও হার্টের যদি কোনও সমস্যা থেকে থাকে তবে নখের রঙ নীল হয়ে যায়।

নখের চারপাশে গাঢ় দাগ:

নখের চারদিকে যদি গাঢ় দাগের সৃষ্টি হয়, তবে তা বুঝতে হবে যে লিভারের সমস্যার দিকে এগোচ্ছে। নখের ভিতরের অংশ সাদা হয়ে আসে এই অবস্থাতে।

হলদে ভাব:

নখের মধ্যে যদি হলুদ দাগ থাকে, তবে তা থেকে সমস্যা দেখা দিতে পারে। যেমন, থাইরয়েড, জন্ডিসের মতো রোগ হতে পারে। নখে ছত্রাকের আক্রমণ থেকেও এমনটা হতে পারে। নখের রং যদি হলুদ হতে শুরু করে এবং ক্রমশ শক্ত মোটা হয়ে যায়, তবে তা নখে ছত্রাকের আক্রমণ থেকে হতে পারে। অনেক সময় অতিরিক্ত নেলপালিশ পরার ফলেও এই সমস্যা দেখা দেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here