গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী হতে আসিনি, সাইনবোর্ড হতেও নয়: মমতা

39

পানাজি: গোয়ায় তিনি মুখ্যমন্ত্রী হতে আসেননি৷ গোয়ায় তিনি বহিরাগতও নন৷ গোয়ায় মাটিতে পা দিয়ে দলীয় বৈঠকে বক্তব্য রাখতে গিয়েই এমনই দাবি করলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

শুক্রবার গোয়ায় তৃণমূল নেত্রীর একাধিক কর্মসূচি রয়েছে। ইতিমধ্যেই তিনি নাগরিক সমাজের সঙ্গে মিলিত হয়েছেন। তিনি বলেন, গোয়া সুন্দর রাজ্য। এর আগেও তিনি রেলমন্ত্রী থাকাকালীন গোয়ায় এসেছেন। তিনি গোয়ারই সন্তান।

গোয়ায় সাইনবোর্ড হওয়ার জন্য তিনি আসেননি। বিমানবন্দরে তাঁকে কালো পতাকা দেখানো হলেও, নমস্কার জানিয়েছন। তৃণমূল কখনও আপোস করে না, এমনটাও বার্তা দিয়েছেন। ‘বাংলা আমার মাতৃভূমি, গোয়াও আমার মাতৃভূমি। ধর্মনিরপেক্ষতায় বিশ্বাসী। গোয়ার বৈচিত্রের সঙ্গে বাংলার মিল আছে, গোয়ায় ফুটবলের অনুরাগী আছে।‘ দলীয় বৈঠকে বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

গোটা ভারতের অর্থনীতি যেখানে তলানীতে, সেখানে বাংলার জিডিপি গ্রোথ বেড়েছে। সমগ্র ভারতে বেকারত্বের হার বাড়লেও বাংলায় কমেছে বেকারত্ব। পশ্চিমবঙ্গে মৎস্যজীবীদের সাহায্য করা হয়ে থাকে। গোয়ায় মৎস্যজীবীদেরও আর্থিক সহায়তা দেওয়া প্রয়োজন। জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

বাংলায় লক্ষ্মীর ভান্ডার, সবুজ সাথী, গতিধারা, কন্যাশ্রীর মতো বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের কথাও তুলে ধরেন মমতা৷ তৃণমূলনেত্রী বলেন, বাংলায় এতকিছু করতে পারলে গোয়ার মতো ছোট রাজ্যে এগুলি করা কোনও ব্যাপারই নয়৷ আমি গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী হতে আসিনি৷ আমি দেখতে চাই দুর্নীতি মুক্ত, নীতি পরায়ণ, মানুষের জন্য কাজ করবে এমন সরকার গোয়ায় ক্ষমতায় আসুক৷ গোয়ার সরকার গোয়ার মানুষের দ্বারা এবং গোয়ার মানুষের জন্যই কাজ করবে৷ আমরা শুধু বাইরে থেকে সাহায্য করব৷ সেটা কীভাবে করতে হয় আমরা জানি৷’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here