আরিয়ান খানের জামিনের আবেদন খারিজ, জেলেই থাকতে হবে

18

মুম্বাইতে আজ শুক্রবার সারা দিন একটাই আলোচনা, শাহরুখপুত্র আরিয়ান খানের জেল হবে, না জামিন হবে!শাহরুখ খান-পুত্র আরিয়ান খানের জামিনের শুনানি এদিন সম্পন্ন হল মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টের প্রধান আরএম নেরলিকারের এজলাসে।এদিন ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে খারিজ হয়ে যায় আরিয়ানের জামিনের আবেদন।তাই ১৪ দিন জেলে কাটাতে হবে শাহরুখপুত্রকে। আরিয়ানের পাশাপাশি না-মঞ্জুর হয়েছে আরবাজ মার্চেন্ট এবং মুনমুন ধামেচার জামিনের আবেদনও। 

আরও পড়ুনঃ ‘আমি সম্ভ্রান্ত পরিবারের ছেলে, পালাব না’, জানালেন আরিয়ান খান

মাদক–কাণ্ডে জড়িত সন্দেহে বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। আজ বিকেল পাঁচটা নাগাদ আদালত আরিয়ানের অন্তর্বর্তী জামিন নামঞ্জুর করেছেন। এনসিবি ক্রমাগত চেষ্টা করেছে, আরিয়ান যেন জামিন না পান। তাদের দাবি, আরিয়ান জামিনে ছাড়া পেলে অনেক তথ্য-প্রমাণ লোপাট হতে পারে। কারণ, তাঁর পাশে অনেক প্রভাবশালী ব্যক্তি আছেন।

আরও পড়ুনঃ আরিয়ান গ্রেফতারের পর শাহরুখকন্যা সুহানার প্রথম পোস্ট

এদিকে আরিয়ানের আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডে আদালতকে বলেছেন, আরিয়ানের বিরুদ্ধে কোনো প্রমাণ যেহেতু পাওয়া যায়নি, তাহলে জেল কিসের? মাদক–কাণ্ডে অভিযুক্ত অন্য ব্যক্তিদের সঙ্গে আরিয়ানের কোনো সম্পর্ক নেই বলে আইনজীবীর দাবি। আর সতীশ মানশিন্ডে আদালতকে জানিয়েছেন, আরিয়ান প্রতিষ্ঠিত পরিবারের ছেলে, তাই তদন্তের স্বার্থে কোনো প্রয়োজন পড়লে তিনি নিশ্চয়ই সাহায্য করবেন। তার জন্য আরিয়ানকে জেলে পাঠানোর প্রয়োজন নেই বলে তারকাপুত্রের দু্ঁদে আইনজীবী বলেছেন। মানশিন্ডে বলেছেন, আরিয়ানের পাসপোর্ট ভারতীয়, তাই তাঁর দেশ ছেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা নেই। এই আইনজীবী অত্যন্ত দৃঢ়তার সঙ্গে জানিয়েছেন, আরিয়ান মাদক সেবন করেননি।

দেশে থেকে পালিয়ে যাওয়ার কোনও চেষ্টা সে করবে না্, এমনকি ক্ষমতাশালী বাবার ছেলে বলে তথ্য-প্রমাণের লোপাটের কোনও চেষ্টাও সে করবে না- এমন আশ্বাস দেয় আরিয়ান। কিন্তু তা সত্ত্বেও শুধুমাত্র গ্রহণযোগ্যতা না-থাকার দরুণ এদিন আরিয়ানের জামিন খারিজ হল। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here